চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২ , ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আই অ্যাম সরি। আমি তো ট্রু সেন্সে বেহেশত বলিনি, কথার কথা বলেছি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ১৫ আগস্ট, ২০২২ ৫:১২ : পূর্বাহ্ণ

সাংবাদিকদের উদ্দেশ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আপনারা (সাংবাদিক) আমাকে ধরে ফেললেন। আই অ্যাম সরি। আমি তো ট্রু সেন্সে বেহেশত বলিনি, কথার কথা বলেছি। কিন্তু আপনারা আমাকে খায়া ফেললেন। এই হল বাংলাদেশের মিডিয়ার স্বাধীনতা খর্ব করা।

‘দেশের মানুষ বেহেশতে আছে’- কথা প্রসঙ্গে এ কথা বলেন বলে দাবি করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ কথা বলার পর সাংবাদিকরা তাকে বিপাকে ফেলেছেন বলেও জানান তিনি।

রোববার (১৪ আগস্ট) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মিশেল ব্যাশেলের সঙ্গে বৈঠকে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা বলতে গিয়ে নিজের মন্তব্য নিয়ে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, গত পরশু আমাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল- আমাদের ইকোনমিক অবস্থা কেমন? আমি বলেছিলাম, আমরা তো ভালো করছি। এই কোভিডের সময় গত বছর জিডিপির গ্রোথ ছিল ৬ দশমিক ৯৪। তবে আমরা ভালো করার চেষ্টা করছি।

আব্দুল মোমেন বলেন, আমরা জ্বালানি সাশ্রয়ের উদ্যোগ নিয়েছি। সে কারণে আমাদের দাম বেড়েছে ৭ শতাংশ। আমেরিকায় বাড়ছে ৯ দশমিক ১ শতাংশ, যুক্তরাজ্যে বেড়েছে, তুরস্কে বেড়েছে, পাকিস্তানে বেড়েছে ৩৭ শতাংশ, মিয়ানমারে বেড়েছে ১৫০ শতাংশ। সেদিক থেকে আমরা তো অনেক ভালো আছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি কি মিডিয়ার স্বাধীনতা খর্ব করেছি? আফটার অল আই অ্যাম অ্যা পাবলিক ফিগার। নিশ্চয়ই আপনারা আমাকে ক্রিটিসাইজ করতে পারেন। আই ডোন্ট মাইন্ড। তবে আগামীতে সাবধান হইতে হবে। আমি খোলামেলা মানুষ। আমি শিক্ষক মানুষ। আমি যেটা মনে করি, সেটা খোলামেলা বলে ফেলি। আমার দলও আমাকে বলেছে, এই পজিশনে থেকে ভালো কথা বলা দরকার।

এর আগে গত শুক্রবার (১২ আগস্ট) সিলেটে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কিত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের মানুষ বেহেশতে আছে’। এরপর সারাদেশে মন্ত্রীর এই বক্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

Print Friendly and PDF