চট্টগ্রাম, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২ , ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

একের পর এক অভাব তাড়া করে বেড়াচ্ছে শ্রীলঙ্কানদের

প্রকাশ: ৫ জুলাই, ২০২২ ৫:৪২ : পূর্বাহ্ণ

অর্থনৈতিক সংকটে থাকা শ্রীলঙ্কাতে যেন একের পর এক সমস্যা ঘিরে ধরছে। জ্বালানি তেল সংকটের পাশাপাশি দেশটিতে খাবারের সংকটের সঙ্গে এবার যুক্ত হয়েছে শিশু খাদ্য। ফলে শিশুদের দুধ খাওয়াতে পারছেন না মায়েরা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- শ্রীলঙ্কার একটি স্থানে অনেক মানুষের জন্য রান্না হচ্ছে। যেখানে থেকে রান্নার মৌ মৌ গন্ধ বের হচ্ছে। এখানে এক প্লেট খাবারের জন্য শত শত মানুষ ভিড় করছে। যেখানে শিশুসহ অনেক মা রয়েছেন।

এমনই একজন হলেন চন্দ্রিকা মানেল। তিনি চার সন্তানের জননী। তিন তার সন্তানদের খাবার খাওয়ানোর সময় বলেন, এখানে এত সংকট দেখা দিয়েছে যে একটি রুটি কিনতে গেলেও সংগ্রাম করতে হয়।

তিনি বলেন, অধিকাংশ সময় আমি বাচ্চাদের ভাত এবং দুধ দিয়ে থাকি। কিন্তু শাক পাতা রান্না করতে পারি না। কারণ এগুলো খুবই ব্যয় বহুল হয়ে পড়েছে।

সম্প্রতি শ্রীলঙ্কাতে বৈদেশিক রিজার্ভের কমতি এবং ক্রমাগত মুদ্রাস্ফীতির কারণে অর্থনীতিতে ধস নামে। এছাড়া প্রেসিডেন্ট গোটাবে রাজপাকসের কিছু উচ্চ বিলাসী সিদ্ধান্তের কারণে আজ শ্রীলঙ্কার এ অবস্থা। সেই সঙ্গে রয়েছে করোনা মহামারিতে পর্যটন শিল্পের ধস।

এদিকে ইউনিসেফ জানিয়েছে বর্তমানে শ্রীলঙ্কাতে মানবিক সংকট চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, দেশের প্রায় ৭০ শতাংশ পরিবার তাদের খাদ্যের পরিমান কমিয়ে দিয়েছে। এছাড়া তেল এবং জরুরি মেডিকেল সেবাও ফুরিয়ে আসছে।

চন্দ্রিকা মানেল বলেন, জীবনধারণ আমাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়েছে। এজন্য আমাদের ঋণ নিতে হচ্ছে।

অনেকে আবার সন্তানদের দিনের পর দিন কাঁঠাল রান্না করে খাওচ্ছে। এমন অবস্থায় পর্যাপ্ত খাবার পাচ্ছে না শিশুরা। ফলে তাদের শরীরে পুষ্টির অভাব দেখা দিয়েছে।

Print Friendly and PDF