চট্টগ্রাম, শনিবার, ২১ মে ২০২২ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সয়াবিন তেল নিয়ে কারসাজি, সরিষার দিকে ঝুঁকছেন ক্রেতারা

প্রকাশ: ৮ মে, ২০২২ ৫:৪৫ : পূর্বাহ্ণ

তেল নিয়ে তেলেসমাতি চলছে দেশজুড়েই। বাজার থেকে উধাও সয়াবিন তেল। দোকানিদের অভিযোগ, সংকটের দোহাই দিয়ে তেলের সঙ্গে জুড়ে দেয়া হচ্ছে অন্য পণ্য।

ওয়াসিম। নিত্য প্রয়োজনে সয়াবিন তেলের জন্য ঘুরেছেন। কিন্তু মেলেনি। উপায় না পেয়ে বাড়ি ফিরেছেন সরিষার তেল কিনে। তার মত এমন ভোগান্তি শিকার অনেকেই।

অন্যদিকে সংকটের দোহাই দিয়ে একটু জোরাজুরিতে জুড়ে দেয়া হচ্ছে শর্ত। এমন অভিযোগ বেশিরভাগ দোকানির। যদিও ক্রেতারা বলছেন, সংকটের মাঝেও বেশি দামে কিনতে হচ্ছে খোলা তেল।

তবে নিম্নবিত্তদের চাওয়া তেল নিয়ে চলমান অস্থিরতা দ্রুত নিরসন না হলে চরম বিপাকে পড়বেন তারা।

এদিকে বিশ্ব বাজারে এক বছর ধরেই তেলসহ নিত্যপণ্যের অনেক কিছুর দাম বাড়তির দিকেই ছিল। বিশেষ করে ২০২০ সালের শেষ দিকে এসে সারা বিশ্বেই এই প্রবণতা দেখা যায়।

তবে এই পরিস্থিতির অবনতি হয় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর। এই দুটি দেশ থেকে তেল সরবরাহে ঘাটতি হওয়ায় ব্যাপক চাপ পড়ে পাম ও সয়াবিন তেলের ওপর।

এমন পরিস্থিতিতে পাম তেলের অন্যতম প্রধান সরবরাহকারী দেশ ইন্দোনেশিয়া গত ২৮শে এপ্রিল পাম তেল রপ্তানি বন্ধ করে দেয়।

দেশে সয়াবিন তেলের মূল্য রেকর্ড ভেঙ্গে লিটার প্রতি ১৯৮ টাকা ধার্য হওয়ার পর থেকে ভোক্তা পর্যায়ে ক্ষোভ আর অসন্তোষ দেখা গেলেও বিশ্লেষক ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিশ্ব বাজারে দামের রেকর্ড হওয়ার কারণেই এমন অবস্থা তৈরি হয়েছে।

নতুন দাম অনুযায়ী সয়াবিন তেলের পাঁচ লিটারের বোতলের দাম এখন ৯৮৫ টাকা। আগে এর দাম ছিল প্রায় ৭৬০ টাকা। এছাড়া খোলা সয়াবিন তেল প্রতি লিটারের দাম হবে এখন ১৮০ টাকা, যা এতদিন ১৪০ টাকা ছিল।

নতুন মূল্য তালিকা অনুযায়ী, পরিশোধিত পাম সুপার তেল প্রতি লিটারের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য হবে ১৭২ টাকা, যা এতদিন ছিল ১৩০ টাকা।

সেই হিসাবে পাম তেলের দাম বেড়েছে ২৪%। আর সয়াবিনের দাম খুচরায় বেড়েছে ২৮%, বোতল জাতের ক্ষেত্রে ২৫%।

Print Friendly and PDF