চট্টগ্রাম, মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর ২০২২ , ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

২৩ লাখ টাকা দিয়ে কিনেছিলেন কালো ঘোড়া, গা ধুতেই হয়ে গেল বাদামি!

প্রকাশ: ২৬ এপ্রিল, ২০২২ ৫:৩২ : পূর্বাহ্ণ

ঘোড়া অনেকের কাছে পছন্দের প্রাণী। কিন্তু অধিক দাম হওয়ায় কেনার সামর্থ থাকে না। তবে এ ক্ষেত্রে শখ পূরণ করতে কার্পণ্য করেননি ভারতের পাঞ্জাবের বাসিন্দা রমেশ কুমার।

শখ ছিল কালো কুচকুচে একটা ঘোড়া কেনার। এ রকম একটি ঘোড়া যখন তিনি খুঁজছেন, তখনই ঘোড়া ব্যবসায়ীর সঙ্গে আলাপ হয় রমেশের। রমেশ ব্যবসায়ীদের কাছে তাঁর চাহিদার কথা জানান। কালো কুচকুচে ঘোড়া তাঁকে জোগাড় করে দেওয়ার আশ্বাসও দেন ব্যবসায়ীরা। সেই মতো একটি ঘোড়া নিয়ে এসে রমেশের কাছে হাজির হন জিতেন্দ্র পাল সিংহ সেখোঁ, লখিন্দর সিংহ এবং লাচরা খান নামে ওই তিন ব্যবসায়ী।

ঘোড়াটি দেখে বেশ আহ্লাদিত হয়েছিলেন রমেশ। ব্যবসায়ীদের এর জন্য প্রথমে নগদে সাত লাখ ৩০ হাজার টাকা দেন রমেশ। পরে বাকি টাকার দু’টি চেক দেন। মোট ২৩ লাখ টাকা ব্যবসায়ীদের প্রদান করেন রমেশ। এ পর্যন্ত সবকিছুই ঠিক ছিল।

এর পরই এই ঘটনা মোড় নেয় ঘোড়াকে গোসল করাতে গিয়ে। কয়েক দিন বাদে ঘোড়াকে ভাল করে গোসল করানোর সিদ্ধান্ত নেন রমেশ। রগড়ে রগড়ে তাঁর প্রিয় পোষ্যকে যখন গোসল করাচ্ছিলেন, আশ্চর্যজনকভাবে রমেশ খেয়াল করেন ঘোড়ার গা থেকে কালো রং উঠছে। প্রথমে তিনি ভেবেছিলেন হয়তো ঘোড়ার গায়ে ময়লা পড়েছে। কিন্তু ভুল ভাঙে একটু পরেই। যত তিনি পানি দিয়ে ঘোড়ার গা ধুচ্ছিলেন ততই কালো রং উঠে আসছিল। একটা সময় দেখা যায় ঘোড়ার গায়ের রং বাদামি হয়ে গেছে। ছিল কালো ঘোড়া, পানি ঢালতেই হয় গেল লাল! এমন অবস্থা দেখে রমেশের আর বোঝার বাকি থাকেনি যে কত বড় প্রতারণার শিকার হয়েছেন সে।

এর পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন রমেশ। তিন ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

সূত্র: নিউজ ১৮

Print Friendly and PDF