চট্টগ্রাম, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাতের লাঠি ছিনিয়ে পুলিশকে বেদম পেটালো যুবক

প্রকাশ: ১১ এপ্রিল, ২০২২ ৬:২৪ : পূর্বাহ্ণ

আইনের রক্ষক পুলিশ অনেক ক্ষেত্রেই নিজের ক্ষমতার অপপ্রয়োগে লিপ্ত হয়। বাংলাদেশ কিংবা ভারতে এর উদাহরণ মেলে অহরহ। তবে সাধারণত পুলিশকে ভয় পায় আমজনতা। বহু সাহসী অপরাধীও পুলিশ দেখলে ভাল মানুষ বনে যায়।

কারণ আইনরক্ষক পুলিশের কাজই হল অপরাধীকে শায়েস্তা করা। প্রয়োজনে শাস্তি দেয়ার অধিকার রয়েছে পুলিশ বাহিনীর। কিন্তু সম্পূর্ণ বিপরীত ঘটনার সাক্ষী হলো ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর।

এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, এক পুলিশ সদস্যের হাত থেকে লাঠি ছিনিয়ে নিয়ে তাকেই বেধড়ক পেটালো এক যুবক। ইতিমধ্যে এই ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সে ভিডিও দেখে বিস্মিত হয়েছেন নেটিজেনরা। যুবককে গ্রেপ্তার করে তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে ইন্দোরের ভেঙ্কটেশ নগরে। ওই পুলিশ সদস্যের নাম জয় প্রকাশ জয়সওয়াল। অভিযুক্ত যুবকের নাম দীনেশ প্রজাপতি।

এদিন দুপুরে কনস্টেবল জয় প্রকাশের মোটরবাইকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে দীনেশের মোটরবাইকের । এরপরই দু’জনের মধ্যে বাক-বিতণ্ডা শুরু হয়। সম্ভবত পুলিশ বলে ক্ষমতার দাপট দেখিয়েছিলেন জয়। আর তাতেই রেগেমেগে ২৫ বছর বয়সী দীনেশ কনস্টবলের হাত থেকে লাঠি ছিনিয়ে নেয় এবং সেই লাঠি দিয়েই তাকে মারতে শুরু করে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, সাদা জামা পরা দীনেশের একের পর এক লাঠির বাড়িতে মাটিতে পড়ে যান ওই পুলিশ সদস্য। তার মাথায়ও লাঠি দিয়ে আঘাত করে দীনেশ। এমনকি শেষে পর্যন্ত যুবকের হাত থেকে বাঁচতে ওই পুলিশকে পালাতেও দেখা যায়। ঘটনার সময় রাস্তায় বহু মানুষ থাকলেও তারা পুলিশ সদস্যকে যুবকের হাত থেকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসেননি।

পরে কনস্টেবলের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্ত যুবক দীনেশ প্রজাপতিকে। দীনেশের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ইন্দোরের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডেপুটি পুলিশ কমিশনার রাজীব সিং ভাদুরিয়া বলেন, অনুমান করে হচ্ছে অভিযুক্ত যুবক ওই সময় মদ্যপ অবস্থায় ছিল। অভিযুক্তের অতীতে কোনো মামলা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Print Friendly and PDF